November 18, 2018, 8:55 am

News Headline :
“১৫ টাকা সিট ভাড়া এবং ৩৮ টাকা খাবারের কাটপিস” পবিত্র হজ পালনে সাড়ে ১৩ হাজার কিমি. রাস্তা পায়ে হেঁটে মক্কায় ইন্দোনেশিয়ান যুবক যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ কে দেখতে হাসপাতালে মুক্ত বাংলার সভাপতি আবুল কালাম আজাদ হাওলাদার। টাইব্রেকারে রাশিয়াকে হারিয়ে সেমি ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া শুধু খালি পেটে এক কোয়া রসুন, এরপর ‘ম্যাজিক’ যে কৌশলে সহজেই দুর্বল হয়ে পড়ে নারীরা নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে মেধাবীরা অলস হয় যে খাবার খেলে পুরুষের শরীর সুগন্ধময় হয় এডভোকেট ইউসুফ হোসাইন হুমায়ুনকে ভোলা – ২ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী আবুল কালাম আজাদ হাওলাদারের অভিনন্দন জামাতের সেক্রেটারির কাছে মাফ চাইলেন তারেক রহমান
বেলজিয়ামের কাছে ব্রাজিলের হারের ৪ কারণ

বেলজিয়ামের কাছে ব্রাজিলের হারের ৪ কারণ

বেলজিয়ামের কাছে ২-১ গোলে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ব্রাজিল। অপ্রত্যাশিতভাবে হেরে যাওয়ায় তা নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। ইতিহাস-ঐতিহ্য, রেকর্ড, পরিসংখ্যান, শক্তিমত্তা (কথিত)-সবদিক থেকে এগিয়ে থেকেও কেন এমন হার পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের? সেই প্রশ্নের জবাব পেতে ম্যাচের ময়নাতদন্ত করেছেন ফুটবল বোদ্ধারা। সংক্ষেপে তাদেরই আলোচনার কি-পয়েন্ট তুলে ধরা হলো-
১. ফেভারিট তকম: এটি ছিল কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ। যেখানে সার্বিকভাবে ফেভারিট ছিল ব্রাজিল। বিষয়টি গায়ে সেঁটে নিয়েছিলেন নেইমাররাও। এটিই শেষ পর্যন্ত কাল হয়েছে। কারণ, এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট বলতে কিছু নেই। শুরু থেকে ছোট দলগুলো (তথাকথিত) বড় দলগুলোকে ধরাশায়ী করছে। এতদসত্ত্বেও বিষয়টি সতর্কতার সঙ্গে নেননি সেলেকাওরা।
২. নিষ্প্রভ কুতিনহো: যার ডানায় চড়ে এতদূর এসেছিল ব্রাজিল, সেই তিনিই এ ম্যাচে সবচেয়ে অনুজ্জ্বল। ফলে মাঝমাঠ থেকে যে আক্রমণটা হওয়ার কথা ছির তা হয়নি। বলও জোগান দিতে পারেননি। উল্টো নাগালে পাওয়া একাধিক সুযোগ মিস করেছেন। দুর্বল মিডফিল্ডেরই সুযোগ নিয়েছে বেলজিয়াম। যতবার আক্রমণে উঠেছে তারা, সবই মাঝমাঠ দিয়ে।
৩. ইউরোপিয়ান গতি বনাম লাতিন ছন্দ: আবারো ইউরোপিয়ান গতির কাছে পরাভূত হলো লাতিন ছন্দ। এডেন হ্যাজার্ড, কেভিন ডি ব্রুইনা, রোমেলু লুকাকুদের গতির সঙ্গে কোনোমতেই পেরে উঠেননি থিয়াগো সিলভা, ফ্যাগনার, মিরান্দারা। তবু ছন্দময় ফুটবল খেলতে চেয়েছে ব্রাজিল। শেষ পর্যন্ত তা ধোপে টিকেনি।
৪. কাসেমিরোর অনুপস্থিতি: কাসেমিরোর জায়গাটা কোনোভাবেই পূরণ করতে পারেননি ফার্নান্দিনহো। একজন হোল্ডিং মিডফিল্ডারের কাজ হচ্ছে প্রতিপক্ষের আক্রমণগুলো দুমড়ে মুচড়ে ভেস্তে দেয়া। পাশাপাশি রক্ষণভাগের সামনে প্রাচীর হয়ে থাকা। তা করতে বারবার ব্যর্থ ফার্নান্দিনহো। তাকে দেখে বারবারই মনে হয়েছে, নিজের জায়গাটাই চিনতে পারছেন না তিনি। সেই ফাঁকারই সুযোগ নিয়েছেন হ্যাজার্ডরা। ২-১ গোলে জিতে মাঠ ছেড়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2018 MuktoNews.Com
Design & Developed BY DevelopBD.Com